৩৭. সূরাঃ সাফ-ফাত

আয়াত অবতীর্ণঃ মক্কা
আয়াত সংখ্যাঃ ১৮২
রুকূঃ ৫
১৫১ أَلَا إِنَّهُم مِّنْ إِفْكِهِمْ لَيَقُولُونَ
সাবধান! তারা তো মনগড়া কথা বলে (যে,)
১৫২ وَلَدَ اللَّهُ وَإِنَّهُمْ لَكَاذِبُونَ
আল্লাহ, সন্তান জন্ম দিয়েছেন। তারা নিশ্চয়ই মিথ্যাবাদী।
১৫৩ أَصْطَفَى الْبَنَاتِ عَلَى الْبَنِينَ
তিনি কি পুত্র সন্তানের উপরে কন্যা সন্তান পছন্দ করতেন?
১৫৪ مَا لَكُمْ كَيْفَ تَحْكُمُونَ
তোমাদের কি হয়েছে, তোমরা কিরূপ বিচার কর?
১৫৫ أَفَلَا تَذَكَّرُونَ
তবে কি তোমরা উপদেশ গ্রহণ করবে না?
১৫৬ أَمْ لَكُمْ سُلْطَانٌ مُّبِينٌ
তোমাদের কি সুস্পষ্ট দলীল প্রমাণ আছে?
১৫৭ فَأْتُوا بِكِتَابِكُمْ إِن كُنتُمْ صَادِقِينَ
তোমরা সত্যবাদী হলে তোমাদের কিতাব উপস্থিত কর?
১৫৮ وَجَعَلُوا بَيْنَهُ وَبَيْنَ الْجِنَّةِ نَسَبًا ۚ وَلَقَدْ عَلِمَتِ الْجِنَّةُ إِنَّهُمْ لَمُحْضَرُونَ
তারা আল্লাহ ও জিন জাতির মধ্যে আত্মীয়তার সম্পর্কে স্থির করেছে, অথচ জিনেরা জানে যে, তাদেরকেও উপস্থিত করা হবে।
১৫৯ سُبْحَانَ اللَّهِ عَمَّا يَصِفُونَ
তারা যা বলে তা হতে আল্লাহ পবিত্র, মহান।
১৬০ إِلَّا عِبَادَ اللَّهِ الْمُخْلَصِينَ
আল্লাহর একনিষ্ঠ বান্দারা ব্যতীত।
১৬১ فَإِنَّكُمْ وَمَا تَعْبُدُونَ
তোমরা এবং তোমরা যাদের ইবাদত কর তারা-
১৬২ مَا أَنتُمْ عَلَيْهِ بِفَاتِنِينَ
তোমরা কেউই আল্লাহ সম্বন্ধে বিভ্রান্ত করতে পারবে না।
১৬৩ إِلَّا مَنْ هُوَ صَالِ الْجَحِيمِ
শুধু জাহান্নামে প্রবেশকারীকে ব্যতীত।
১৬৪ وَمَا مِنَّا إِلَّا لَهُ مَقَامٌ مَّعْلُومٌ
আমাদের (ফেরশতাদের) প্রত্যেকের জন্যেই নির্ধারিত স্থান রয়েছে,
১৬৫ وَإِنَّا لَنَحْنُ الصَّافُّونَ
আমরা তো সারিবদ্ধভাবে দন্ডায়মান।
১৬৬ وَإِنَّا لَنَحْنُ الْمُسَبِّحُونَ
এবং আমরা অবশ্যই তাঁর পবিত্রতা ঘোষণাকারী।
১৬৭ وَإِن كَانُوا لَيَقُولُونَ
তারাই (কাফিরগণ) তো বলে এসেছে,
১৬৮ لَوْ أَنَّ عِندَنَا ذِكْرًا مِّنَ الْأَوَّلِينَ
পূর্ববর্তীদের কিতাবের মতো যদি আমাদের কোন কিতাব থাকতো,
১৬৯ لَكُنَّا عِبَادَ اللَّهِ الْمُخْلَصِينَ
তবে অবশ্যই আমরা আল্লাহর একনিষ্ঠ বান্দা হতাম।
১৭০ فَكَفَرُوا بِهِ ۖ فَسَوْفَ يَعْلَمُونَ
কিন্তু তারা তা (কুরআন) প্রত্যাখ্যান করলো এবং শীঘ্রই তারা জানতে পারবে।
১৭১ وَلَقَدْ سَبَقَتْ كَلِمَتُنَا لِعِبَادِنَا الْمُرْسَلِينَ
আমার প্রেরিত বান্দাদের সম্পর্কে আমার এই বাক্য পূর্বেই স্থির হয়েছে (যে,)
১৭২ إِنَّهُمْ لَهُمُ الْمَنصُورُونَ
অবশ্যই তারা সাহায্যপ্রাপ্ত হবে,
১৭৩ وَإِنَّ جُندَنَا لَهُمُ الْغَالِبُونَ
এবং নিশ্চয়ই আমার বাহিনী হবে বিজয়ী।
১৭৪ فَتَوَلَّ عَنْهُمْ حَتَّىٰ حِينٍ
অতএব, কিছুকালের জন্যে তুমি তাদেরকে উপেক্ষা কর।
১৭৫ وَأَبْصِرْهُمْ فَسَوْفَ يُبْصِرُونَ
তুমি তাদেরকে পর্যবেক্ষণ কর, শীঘ্রই তারা প্রত্যক্ষ করবে।
১৭৬ أَفَبِعَذَابِنَا يَسْتَعْجِلُونَ
তারা কি আমার শাস্তির ব্যাপারে তাড়াহুড়া করছে?
১৭৭ فَإِذَا نَزَلَ بِسَاحَتِهِمْ فَسَاءَ صَبَاحُ الْمُنذَرِينَ
তাদের আঙ্গিনায় যখন শাস্তি নেমে আসবে তখন সতর্কীকৃতদের প্রভাত হবে খুবই মন্দ।
১৭৮ وَتَوَلَّ عَنْهُمْ حَتَّىٰ حِينٍ
অতএব কিছুকালের জন্যে তুমি তাদেরকে উপেক্ষা কর।
১৭৯ وَأَبْصِرْ فَسَوْفَ يُبْصِرُونَ
তুমি (তাদেরকে) পর্যবেক্ষণ কর, শীঘ্রই তারা প্রত্যক্ষ করবে।
১৮০ سُبْحَانَ رَبِّكَ رَبِّ الْعِزَّةِ عَمَّا يَصِفُونَ
তারা যা আরোপ করে তা হতে পবিত্র ও মহান তোমার প্রতিপালক, যিনি সকল ইযযত ক্ষমতার অধিকারী।
১৮১ وَسَلَامٌ عَلَى الْمُرْسَلِينَ
আর শান্তি বর্ষিত হোক রাসূলদের উপর।
১৮২ وَالْحَمْدُ لِلَّهِ رَبِّ الْعَالَمِينَ
যাবতীয় প্রশংসা জগতসমূহের প্রতিপালক আল্লাহরই প্রাপ্য।
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x