২৬. সূরাঃ আশ শো’আরা

আয়াত অবতীর্ণঃ মক্কা
আয়াত সংখ্যাঃ ২২৭
রুকূঃ ১১
২০১ لَا يُؤْمِنُونَ بِهِ حَتَّىٰ يَرَوُا الْعَذَابَ الْأَلِيمَ
তারা এতে ঈমান আনবে না যতক্ষণ না তারা পীড়াদায়ক শাস্তি প্রত্যক্ষ করে।
২০২ فَيَأْتِيَهُم بَغْتَةً وَهُمْ لَا يَشْعُرُونَ
ফলে এটা তাদের নিকট এসে পড়বে আকস্মিকভাবে, তারা কিছুই বুঝতে পারবে না।
২০৩ فَيَقُولُوا هَلْ نَحْنُ مُنظَرُونَ
তখন তারা বলবেঃ আমাদেরকে কি অবকাশ দেয়া হবে?
২০৪ أَفَبِعَذَابِنَا يَسْتَعْجِلُونَ
তারা কি তবে আমার শাস্তির ব্যাপারে তাড়াহুড়ো করছে।
২০৫ أَفَرَأَيْتَ إِن مَّتَّعْنَاهُمْ سِنِينَ
তুমি কিছু ভেবে দেখেছ? যদি আমি তাদেরকে দীর্ঘকাল ভোগবিলাস করতে দিই,
২০৬ ثُمَّ جَاءَهُم مَّا كَانُوا يُوعَدُونَ
এবং পরে তাদেরকে যে বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছিল তা তাদের নিকট এসে পড়ে,
২০৭ مَا أَغْنَىٰ عَنْهُم مَّا كَانُوا يُمَتَّعُونَ
তখন তাদের ভোগ-বিলাসের উপকরণ তাদের কোন কাজে আসবে না?
২০৮ وَمَا أَهْلَكْنَا مِن قَرْيَةٍ إِلَّا لَهَا مُنذِرُونَ
আমি এমন কোন জনপদ ধ্বংস করিনি যার জন্যে সতর্ককারী ছিল না।
২০৯ ذِكْرَىٰ وَمَا كُنَّا ظَالِمِينَ
এটা উপদেশ স্বরূপ, আর আমি কখনো অত্যাচারী নই।
২১০ وَمَا تَنَزَّلَتْ بِهِ الشَّيَاطِينُ
শয়তানরা এ নিয়ে (কুরআনসহ) অবতীর্ণ হয়নি।
২১১ وَمَا يَنبَغِي لَهُمْ وَمَا يَسْتَطِيعُونَ
তারা এ কাজের যোগ্য নয় এবং তারা এর সামর্থ্যও রাখে না।
২১২ إِنَّهُمْ عَنِ السَّمْعِ لَمَعْزُولُونَ
তাদেরকে তো শ্রবণের সুযোগ হতে দূরে রাখা হয়েছে।
২১৩ فَلَا تَدْعُ مَعَ اللَّهِ إِلَـٰهًا آخَرَ فَتَكُونَ مِنَ الْمُعَذَّبِينَ
অতএব তুমি অন্য কোন মা’বূদকে আল্লাহর সাথে ডেকো না, ডাকলে তুমি শাস্তি প্রাপ্তদের অন্তর্ভুক্ত হবে।
২১৪ وَأَنذِرْ عَشِيرَتَكَ الْأَقْرَبِينَ
তোমার নিকটাত্মীয়বর্গকে সতর্ক করে দাও।
২১৫ وَاخْفِضْ جَنَاحَكَ لِمَنِ اتَّبَعَكَ مِنَ الْمُؤْمِنِينَ
এবং যারা তোমার অনুসরণ করে সেই সব মু’মিনের প্রতি নম্র ব্যবহার কর।
২১৬ فَإِنْ عَصَوْكَ فَقُلْ إِنِّي بَرِيءٌ مِّمَّا تَعْمَلُونَ
তারা যদি তোমার অবাধ্যতা করে তবে তুমি বলঃ তোমরা যা কর তার জন্য আমি দায়ী নই।
২১৭ وَتَوَكَّلْ عَلَى الْعَزِيزِ الرَّحِيمِ
তুমি নির্ভর কর পরাক্রমশালী, পরম দয়ালু আল্লাহর উপর।
২১৮ الَّذِي يَرَاكَ حِينَ تَقُومُ
যিনি তোমাকে দেখেন যখন তুমি দন্ডায়মান হও (নামাযের জন্য)।
২১৯ وَتَقَلُّبَكَ فِي السَّاجِدِينَ
এবং দেখেন সিজদাকারীদের সঙ্গে তোমার উঠা-বসা।
২২০ إِنَّهُ هُوَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ
তিনি তো স্রবশ্রোতা, সর্বজ্ঞ।
২২১ هَلْ أُنَبِّئُكُمْ عَلَىٰ مَن تَنَزَّلُ الشَّيَاطِينُ
তোমাদের কি জানাবো কার নিকট শয়তান অবতীর্ণ হয়?
২২২ تَنَزَّلُ عَلَىٰ كُلِّ أَفَّاكٍ أَثِيمٍ
তারা তো অবতীর্ণ হয় প্রত্যেকটি ঘোর মিথ্যেবাদী ও পাপীর নিকট।
২২৩ يُلْقُونَ السَّمْعَ وَأَكْثَرُهُمْ كَاذِبُونَ
তারা কান পেতে থাকে এবং তাদের অধিকাংশই মিথ্যাবাদী।
২২৪ وَالشُّعَرَاءُ يَتَّبِعُهُمُ الْغَاوُونَ
এবং কবিদের অনুসরণ করে তারা যারা বিভ্রান্ত।
২২৫ أَلَمْ تَرَ أَنَّهُمْ فِي كُلِّ وَادٍ يَهِيمُونَ
তুমি কি দেখো না তারা বিভ্রান্ত হয়ে (কল্পনার জগতে) প্রত্যেক উপত্যকায় ঘুরে বেড়ায়?
২২৬ وَأَنَّهُمْ يَقُولُونَ مَا لَا يَفْعَلُونَ
এবং তারা বলে যা তারা করে না।
২২৭ إِلَّا الَّذِينَ آمَنُوا وَعَمِلُوا الصَّالِحَاتِ وَذَكَرُوا اللَّهَ كَثِيرًا وَانتَصَرُوا مِن بَعْدِ مَا ظُلِمُوا ۗ وَسَيَعْلَمُ الَّذِينَ ظَلَمُوا أَيَّ مُنقَلَبٍ يَنقَلِبُونَ
কিন্তু তারা ব্যতীত যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে এবং আল্লাহকে বারবার স্মরণ করে ও অত্যাচারিত হবার পর প্রতিশোধ গ্রহণ করে। অত্যাচারিরা শীঘ্রই জানবে তাদের গন্তব্যস্থল কোথায়!
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x