বিগত ২৫-১-৮১ তারিখে লাইব্রেরীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় জেলা প্রশাসক তাঁর ঘোষিত ১০০ খানা পুস্তক প্রদানের উদ্দেশ্যে এক মহতী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন বিগত ৯-৬-৮১ তারিখে বাকেরগঞ্জ জেলা পরিষদের সভাকক্ষে। অন্যান্য বহু গণ্যমান্য ব্যক্তির মধ্যে নিম্নলিখিত সুধীবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন –

(১) মাননীয় আব্দুল আউয়াল, জেলা প্রশাসক, বাকেরগঞ্জ (সভাপতি)।

(২) মিসেস ফেরদৌসী বেগম, মহিলা সংসদ সদস্যা, বরিশাল।

(৩) মি. অরবিন্দ কর, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, বাকেরগঞ্জ।

(৪) মি. তারাচরণ চাকমা, মহকুমা প্রশাসক (সদর উত্তর), বরিশাল।

(৫) জনাব আবুল বাহার, সম্পাদক, বাকেরগঞ্জ জেলা পরিষদ।

(৬) অধ্যাপক কাজী গোলাম কাদির, বরিশাল।

(৭) বই.ড. হাবিবুল্লাহ, এডভোকেট (বরিশাল)।

(৮) বাবু সুধীর সেন, মিউনিসিপ্যাল কমিশনার, বরিশাল।

(৯) মৌ. এছাহাক আলী মাতুব্বর, বরিশাল।

(১০) মৌ. মোশাররফ হোসেন মাতুব্বর, বরিশাল।

(১১) মৌ. নজরুল ইসলাম গাজী, বরিশাল।

(১২) মৌ. খালেকুজ্জামান, চেয়ারম্যান, চরবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ।

(১৩) মৌ. সৈয়দ আহম্মদ, উলালঘূর্ণী।

(১৪) মৌ. মোহাম্মদ হোসেন চাপ্রাসী, লামচরি।

(১৫) মৌ. আ. গণি আকন, লামচরি।

(১৬) মৌ. মো. ইয়াছিন আলী সিকদার, লামচরি।

(১৭) মৌ. ডা. আ. আলী সিকদার, লামচরি।

(১৮) মৌ. গোলাম রসূল মোল্লা, লামচরি।

(১৯) মৌ. আব্দুল মালেক মাতুব্বর, লামচরি।

(২০) মৌ. আ. বারেক মাতুব্বর, লামচরি।

(২১) মৌ. ফরিদ উদ্দিন মাতুব্বর, লামচরি।

(২২) নজরুল ইসলাম মাতুব্বর, লামচরি।

(২৩) শামীম আলী মাতুব্বর, লামচরি।

(২৪) হারূন-উর-রশিদ মাতুব্বর, লামচরি প্রমুখ ছাড়াও শহরের বহু শিক্ষামোদী ব্যক্তি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে আমি একটি লিখিত ভাষণ পাঠ করি। ভাষণটির কিয়দংশ প্রকাশিত হয়েছে ‘বাকেরগঞ্জ পরিক্রমা’ পত্রিকায়, বিগত ১৬-৬-৮১ ও ১-৭-৮১ তারিখে। এখানে পুরো ভাষণটি উদ্ধৃত করা হল।

0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x